1. admin@totthoprokash.com : akas :
  2. akaskuakata1992@gmail.com : Mehedi Hasan Sohag : Mehedi Hasan Sohag
শনিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ০১:৩৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
কলাপাড়ায় দখলমুক্ত হলো খাস পুকুর জাতীয় স্থানীয় সরকার দিবস উপলক্ষ্যে কুয়াকাটায় র‍্যালী ও আলোচনা সভা। বিএনপি’র ৪৫ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে কুয়াকাটা পৌর বিএনপি’র আলোচনা সভা। কুয়াকাটায় নদ নদী ও পরিবেশ বিষয়ক মতবিনিময় সভা। ঝালকাঠিতে মৎস্য দপ্তরের অভিযান, অবৈধ জাল জব্দ বরিশালে সর্বজনীন পেনশন স্কিম বাস্তবায়নে জেলা পর্যায়ে অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত। মহিপুরে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা ও দোয়া মোনাজাত অনুষ্ঠিত অবশেষে বলাৎকারের অভিযুক্ত সেই হাফেজ সেলিম গাজী র‌্যাবের হাতে আটক সাপাহারে আম শেষে মালটার দখলে বাজার বরিশালে ইসলামী ছাত্র আন্দোলন বাংলাদেশ এর ৩২ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত বরিশালে জাতীয় কবির ৪৭ তম প্রয়াণ বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত।
বিজ্ঞপ্তিঃ
প্রতিটি জেলা উপজেলায় প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে।

খুলনায় সকল বাধা অতিক্রম করে বিএনপির অনেশন পালিত

  • আপডেট সময়ঃ শনিবার, ২০ নভেম্বর, ২০২১
  • ১২৫ বার

নিউজ ডেস্ক

খুলনায় সকল বাধা অতিক্রম করে বিএনপির অনেশন পালিত

খুলনায় পুলিশের বাধা, সিনিয়র নেতাদের টানা হেচড়া ও ব্যানার-মাইক ছিনিয়ে নেয়ার মধ্যেও সকাল থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত অনশন করেছে খুলনা মহানগর ও জেলা বিএনপি। শনিবার সকাল ৯টা থেকে দুই ঘন্টা পুলিশের সাথে বাকবিতন্ডা শেষে বেলা ১১টায় দলীয় কার্যালয়ের অভ্যন্তরেই অনশন করেছে নেতাকর্মীরা। বিএনপির চেয়ারপার্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশে নিতে অনুমতির দাবিতে কেন্দ্র থেকে অনশন কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়। খুলনা বিএনপি কার্যালয়ের সামনে সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত অনশন কর্মসুচি পালনের ঘোষণা থাকলেও পুলিশের বাধায় নির্ধারিত সময়ে শুরু করতে পারেনি বিএনপির অনশন। সকাল থেকে নেতাকর্মীরা দলীয় কার্যালয়ের সামনে সমবেত হতে থাকে। কিন্তু অনুমতি না থাকায় পুলিশ দলীয় কার্যালয়ের সামনে অনশন করতে দেবে না বলে জানিয়ে দেয়। অনেকক্ষণ পুলিশের সাথে এ বিষয়ে কথা কাটাকাটি হয়। পুলিশ নেতাকর্মীদের টেনে হিচড়ে তুলে দেয়। নির্ধারিত সময়ের আগেই বিএনপি কার্যালয়ের সামনে পুলিশ অবস্থান নেয়।
খুলনায় বিএনপির অনশন চলাকালে কেন্দ্রীয় বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ও নগর সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু সভাপতির বক্তব্যে বলেন, পুলিশ বিএনপির গনতান্ত্রিক ও মানবিক কর্মসূচিতে বাধা দিয়েছে। পুলিশের এহেন অমানবিক আচরণ শান্তিপ্রিয় জনগন মোটেই সমর্থন করে না।
বিকাল ৪টায় বিশিষ্ট ভাষা সৈনিক ও খুলনা জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি এড. বজলুর রহমান নজরুল ইসলাম মঞ্জুকে সরবত পান করিয়ে অনশন ভাঙ্গান। এদিকে অনশন চলাকালে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন, নগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা মনিরুজ্জান মনি, জেলা বিএনপি সাধারণ সম্পাদক আমির এজাজ খান, এড. গাজী আব্দুল বারী, মীর কায়সেদ আলী, শেখ মোশাররফ হোসেন, সেকেন্দার জাফর উল্লাহ খান সাচ্চু, এড. বজলুর রহমান, এস আর ফারুক, অধ্যক্ষ তারিকুল ইসলাম, মনিরুজ্জামান মন্টু, শেখ আব্দুর রশিদ, মোল্লা খায়রুল ইসলাম, রেহানা আক্তার, সিরাজুল হক নান্নু, আবু হোসেন বাবু, জি এম কামরুজ্জামান টুকু, মাহবুব কায়সার, নজরুল ইসলাম বাবু, আসাদুজ্জামান মুরাদ প্রমূখ।
অন্যদিকে খুলনায় গণঅনশন কর্মসূচি পৃথকভাবে পালন করছে মহানগর ও জেলা বিএনপির অপর অংশ। নগরীর সোনাডাঙ্গায় নবপল্লী কমিউনিটি সেন্টারে সকাল থেকে শুরু হয়ে বিকেল ৪টা পর্যন্ত কেন্দ্র ঘোষিত এ কর্মসূচি পালন করে তারা। মহানগর বিএনপির সিনিয়র সহ সভাপতি সাহারুজ্জামান মোর্ত্তজার সভাপতিত্বে কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি ছিলেন বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সাবেক এমপি শেখ মুজিবর রহমান। দিনব্যাপি এ কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন বিএনপি নেতা শফিকুল আলম তুহিন, এস এম মনিরুল হাসান বাপ্পী, খান জুলফিকার আলী জুলু, আজিজুল হাসান দুলু, সুলতান মাহমুদ, এহতেশামুল হক শাওন, শেখ সাদী, আজিজা খানম এলিজা, শেখ হাফিজুর রহমান, কাজী মিজানুর রহমান, মাসুদ পারভেজ বাবু, কে এম হুমায়ুন কবির, মাহবুব হাসান পিয়ারু, তৈয়েবুর রহমান, চৌধুরী শফিকুল ইসলাম হোসেন, একরামুল হক হেলাল, শামীম কবির, অ্যাডভোকেট কানিজ ফাতেমা আমিন, আবু সাঈদ হাওলাদার আব্বাস, শেখ ইমাম হোসেন, রফিকুল ইসলাম বাবু, ইবাদুল হক রুবায়েদ, আতাউর রহমান রুনু, ফারুক হিল্টন, কাজী নেহিবুল হাসান নেহিম, আব্দুল আজিজ সুমন, আব্দুল মান্নান মিস্ত্রি, ইসতিয়াক আহমেদ ইস্তি, গোলাম মোস্তফা তুহিন, মো: তাজিম বিশ্বাস, সজীব তালুকদার প্রমুখ।

সোসাল মিডিয়ায় সেয়ার করুন।

এ জাতীয় আরো খবর।
এই সাইটের কোন নিউজ/অডিও/ভিডিও কপি করা দন্ডনিয় অপরাধ।